স্ট্রিট ফুড এর চমৎকার কিছু রেসিপি

ফুচকা, চটপটি, ভেলপুরি, ছোলা ভুনা
স্ট্রিট ফুড এর চমৎকার কিছু রেসিপি

হ্যালো রাজশাহী ম্যাগাজিন এ সবাইকে স্বাগতম, আশা করি সবাই ভাল আছেন। আজ আপনাদের জন্য নিয়ে এসেছি স্ট্রিট ফুড এর চমৎকার কিছু রেসিপি। পরবর্তী রেসিপি পেতে লাইক ও শেয়ার করুন…
✔ Like ✔ Comment ✔ Share ✔ Tag ✔ Review করে ছড়িয়ে দিন সবার কাছে। ভাল থাকুন, সুস্থ থাকুন আমাদের সাথেই থাকুন।

১। ফুচকা তৈরির রেসিপি সহজ নিয়ম

# পুরি বা পাপড় তৈরির জন্য
* ময়দা ২ কাপ,
* সুজি আধা কাপ,
* সরিষা গুড়া ১ চা চামচ,
* তালমাখনা বা খাবার সোডা ১ চা চামচ,
* লবন সামান্য,
* তেল সামান্য,
* পানি পরিমান মত ।

# পুর বা ভর্তার জন্য উপকরণ
* কাবলি ডাল,
* আদা বাটা আধা চা চামচ,
* জিরা বাটা আধা চা চামচ,
* লবন স্বাদ মত,
* কাচা মরিচ কুচি ইচ্ছা মত,
* চাট মশলা পরিমান মত,
* পিঁয়াজ কুচি ১ চামচ ।

# তেতুলের টক তৈরির উপকরণ
* তেঁতুলের টুকরা ৮-১০ পিস,
* ভাজা ধনে ও জিরার গুড়া আধা চা চামচ,
* শুকনো ভাজা মরিচ গুড়া আধা চা চামচ,
* লবন স্বাদমত,
* চিনি স্বাদমত ।

ফুচকা প্রস্তুত প্রনালিঃ
পুরি বা পাঁপড়ের জন্য প্রথমে একটি বাটিতে পরিমাপকৃত ময়দা, সুজি, সরিষা গুড়া, লবন, তেল ও তালমাখনা বা খাবার সোডা দিন, এরপর চামুচ দিয়ে খুব ভালো ভাবে মিক্স করুন, চাইলে হাত দিয়েও মিক্স করতে পারেন এবং সেটাই উত্তম। ভাল ভাবে মিক্স করার পর পানি দিয়ে শক্ত খামির তৈরির করে নিন, এরপর শক্ত ডো টি ভেজা কাপড় দিয়ে ঢেকে রাখুন আধা ঘণ্টা। এরপর রুটির মত বেলে ফুচকার সাইজে ছোট ছোট করে কাটুন, অপর দিকে তেল গরম দিন। ছোট ছোট কেটে রাখা পুরি গুলো ডুবো তেলে ভেজে তুলুন ।

পুর বা ভর্তা তৈরির প্রস্তুত প্রনালীঃ
ফুচকার পুর বা ভর্তা তৈরির জন্য প্রথমে কাবলি ডাল ৪-৫ ঘণ্টা ভিজিয়ে রাখতে হবে। এরপর ডালগুলো সামান্য জিরা বাটা, আদা বাটা, লবন হলুদ ও সামান্য তেল দিয়ে সিদ্ধ করে নিন, এরপর সিদ্ধ করা ডালে চাট মসলা, কাচাঁ মরিচ কুঁচি, পিয়াজ কুচি দিয়ে মেখে নিন।

তেঁতুলের টক তৈরির প্রনালীঃ
তেঁতুলের টক তৈরির জন্য প্রথমে তেঁতুলের টুকরা গুলো পানিতে ভিজিয়ে রাখুন ৫-১০মিনিট। এরপর তেঁতুলের বিচি থেকে আলাদা করে তাতে ভাজা ধনে ও জিরার গুড়া, শুকনা ভাঁজা মরিচ গুড়া, লবন, চিনি দিয়ে মিক্স করে নিন ।

ফুচকা পরিবেশনঃ
পরিবেশন নতুন করে কি শেখাবো। সেটা তো সবার জানা। তবুও নতুন দের জন্য বলছি পুরি বা পাপড় গুলো হাত দিয়ে ফুটো করে তাতে তৈরি কৃত পুর বা ভর্তা গুলো ঢুকিয়ে দিন। এরপর তেঁতুলের টক দিয়ে পরিবেশন করুন মজাদার ফুচকা।

২। চটপটির তৈরির রেসিপি

উপকরণঃ

* ডাবলি/মটর ৫০০ গ্রাম,
* আলু ২৫০ গ্রাম ( কিউব করে কাটা ),
* হলুদ গুড়ো ১/২ চা চামচ,
* মরিচ গুড়ো ১/২ চা চামচ,
* আদা বাটা ১/২ চা চামচ,
* রসুন বাটা ১ চা চামচ,
* জিরা বাটা ১ চা চামচ,
* সরিষা বাটা ১/২ চা চামচ,
* চটপটি মশলা ২ টেবিল চামচ,
* বিট লবন ১/২ চা চামচ,
* টেস্টিং সল্ট বা স্বাদ লবন ১/২ চা চামচ,
* লবন পরিমান মত,
* সিরকা ৩ টেবিল চামচ,
* পেয়াজকুচি হাফ কাপ,
* কাচাঁ মরিচ মোটা করে কাটা ৫/৬ টি,
* ডিম ২টি ( সেদ্ধ করে কুচি করে কাটতে হবে),
* টালা শুকনো মরিচ গুঁড়া,
* পেয়াজ কুচি,
* কাচাঁ মরিচ কুচি,
* ধনিয়া পাতা কুচি,
* পুদিনা পাতা কুচি,
* লেবুর রস,
* তেঁতুলের টক ও ফুচকা পরিমান মত পরিবেশনের জন্য ।

তেঁতুলের টক বানানোর জন্যঃ
* তেঁতুলের ক্বাথ আধা কাপ বা পরিমান মত,
* চিনি আধা কাপ,
* আধা চা চামচ টালা শুকনো মরিচ গুঁড়া,
* ১ চা চামচ ভাজা জিরার গুঁড়া,
* ১ টেবিল চামচ তেল,
* পরিমানমত বিট লবন এবং সামান্য পানি।

প্রস্তত প্রনালিঃ
মটর বেছে ধুয়ে সারা রাত বা ৮/১০ ঘন্টা ভিজিয়ে রাখুন। ভিজানো মটর ভালো করে ধুয়ে মটরের চার গুণ পানি ও হলুদ গুড়ো, মরিচ গুড়ো, আদা-রসুন-জিরা বাটা, বিট লবন, টেস্টিং সল্ট, সিরকা ও পরিমানমত লবন( ৩ রকমের লবন দিচ্ছেন সুতরাং সাবধানে পরিমানটা নির্ধারন করে দিন) দিয়ে সিদ্ধ বসান। মটর আধা সিদ্ধ হলে একে একে মটরে আলূ, সরিষা বাটা, চটপটি মশলা, পেয়াজকুচি ও কাচাঁ মরিচ দিয়ে ভালো করে জ্বাল দিন তবে খেয়াল রাখুন ডাল যাতে একেবারে গলে না যায় আবার একেবারে যাতে শুকিয়ে না যায়। মাখা মাখা হয়ে এলে এবং আলু সেদ্ধ হয়ে গেলে চটপটিতে লবন ঠিক আছে কিনা দেখে, সিদ্ধ ডিম চটপটির মধ্যে দিয়ে দিন ভালো করে মিশিয়ে নামিয়ে ফেলুন। চুলা থেকে নামিয়ে পরিমান মত টালা শুকনো মরিচ গুঁড়া, পেয়াজ কুচি, কাচাঁ মরিচ কুচি, ধনিয়া পাতা কুচি, পুদিনা পাতা কুচি, লেবুর রস, তেঁতুলের টক ও ফুচকা চটপটির উপর ছিটিয়ে পরিবেশন করুন।

৩। ভেলপুরি রেসিপি

উপকরণঃ

* ময়দা ৩ কাপ,
* বেকিং পাউডার ১ চা চামচ,
* তেল পরিমাণমত,
* আলু সেদ্ধ ১/২ কাপ,
* মটরডাল সেদ্ধ ২ কাপ,
* চিনি ১ চা চামচ,
* তেঁতুলের রস ১ চা চামচ,
* কাঁচামরিচ কুচি ৫ টি,
* ধনেপাতা পরিমাণমত,
* পেঁয়াজ কুচি ২ টি,
* চটপটি মশলা ২ চা চামচ,
* শসা ২ টি,
* টমেটো ৪ টি,
* জিরার গুঁড়া,
* লবন পরিমাণ মত,
* বিট লবন পরিমাণমত ।

প্রনালীঃ
# পুরি তৈরি:
প্রথমে ময়দা নিয়ে এক চা চামচ তেল, লবন, বেকিং পাউডার ও পরিমাণমত পানি দিয়ে মাখিয়ে মন্ড তৈরী করুন। সেখান থেকে রুটির মত করে বেলে নিয়ে ছোট ছোট গোলাকার লেচি আকারে কেটে নিন। এবার ডুবোতেলে ভেজে তুলে রাখুন।

# পুর তৈরি:
সেদ্ধ আলু, মটরডাল ভালোভাবে একসাথে চটকে নিন। চিনি, লবন, তেঁতুলের রস, ধনেপাতা, কাঁচামরিচ কুচি, পেঁয়াজ, চটপটি মশলা, জিরার গুঁড়া ভালোভাবে মেশান।

# ভেলপুরি তৈরীঃ
আগে তৈরী করে রাখা পুরিগুলোকে ফুচকার মত ভেঙে নিতে হবে। এবারে ভেলপুরির পুর ভরে দিন এবং পুর ভরার পর খানিকটা শসা আর টমেটো কুচিও দিয়ে দিন। উপরে সামান্য বিট লবন ছড়িয়ে দিন।

৪। ছোলা ভুনা রেসিপি

উপকরনঃ

* সিদ্ধ ছোলা ৩ কাপ,
* সিদ্ধ আলু বড় ১ টি,
* পেঁয়াজ কুঁচি ১ কাপ,
* দারচিনি ১ টুকরা, এলাচ ১ টি, তেজপাতা ১ টি,
* শুকনা মরিচ + কাঁচা মরিচ ফালি ২+২ টি,
* আদা বাটা ১ ১/২ চা চামচ,
* রসুন বাটা ১ ১/২ চা চামচ,
* লবন পরিমানমত,
* মরিচ গুঁড়া ১/২ চা চামচ,
* হলুদ গুঁড়া ১/২ চা চামচ,
* জিরা গুঁড়া ১ চা চামচ,
* পানি ১ কাপ,
* ধনিয়া পাতা ১/৪ কাপ,
* তেল ১/৪ কাপ ।

প্রনালীঃ
এক কাপ ছোলা সারারাত ভিজিয়ে রেখে দিন। পরে ছোলা ভালভাবে ধুয়ে পরিমানমত পানি দিয়ে সিদ্ধ করে নিন। ছোলা সিদ্ধ করার মাঝামাঝি সময়ে আলুও সিদ্ধ করে নিন। ছোলা সিদ্ধ হয়ে গেলে ছোলার পানি ছেঁকে ছোলা ধুয়ে নিন। সিদ্ধ আলুও ছিলে নিন। এখন পাত্রে তেল গরম দিন। গরম তেলে পেঁয়াজ, শুকনা ও কাঁচা মরিচ এবং গরম মশলাগুলো দিন। পেঁয়াজ ভাঁজা ভাঁজা হয়ে গেলে সামান্য পানি দিয়ে আদা, রসুন, হলুদ, মরিচ, লবন এবং জিরা দিয়ে দিন। মশলা অল্প অল্প পানি দিয়ে বেশ সময় নিয়ে কষিয়ে নিন। পানি শুকিয়ে মশলার উপর তেল উঠে এলে এর মধ্যে সিদ্ধ আলু হাতে ভেঙে দিয়ে দিন। ভালকরে নেড়ে আলু একটু কষিয়ে নিয়ে এর মধ্যে সিদ্ধ ছোলাগুলো দিয়ে দিন। এবার সব একসাথে নেড়ে ছোলায় পানি দিয়ে দিন। এরপর সব নেড়ে ছোলা কিছুক্ষনের জন্য ঢেকে দিয়ে রান্না করুন। ছোলার পানি কমে আসা শুরু হলে ঘন ঘন নেড়ে দিন। ছোলার পানি টেনে ছোলা মাখা মাখা হয়ে এলে উপরে ধনিয়া পাতা ছড়িয়ে দিয়ে চুলা বন্ধ করে দিন। তৈরি মজাদার ছোলা ভুনা।

(Visited 92 times, 1 visits today)
Share :
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply

Be the First to Comment!

Notify of
avatar