সহজ পদ্ধতিতে মজাদার ৪ পদের আইসক্রিম তৈরি করুন ঘরেই

মজাদার ৪ পদের আইসক্রিম তৈরি করুন ঘরেই

কাঠফাটা রোদের গ্রীষ্ম থেকে শুরু করে কনকনে শীত- যে কোনো সময়েই আইসক্রিম খাবার লোভ সামলানো কঠিন। গরমের তাপকে মোকাবেলা করার জন্য ঠান্ডা পানি বেশি বেশি পান করার কথা বলা হয়। পানি ছাড়াও গরমে প্রশান্তি পেতে সাহায্য করে আইসক্রিম, যা ছোট থেকে বড় সবার খুব পছন্দ। ইচ্ছেমত বাসায় তৈরি করে খাওয়া যায় না বলে হা হুতাশ করেন অনেক আইসক্রিম-প্রেমী। যদি আইসক্রিম ঘরেই তৈরি করে খাওয়া যায় তাহলে তা স্বাস্থ্যসম্মত হয় বেশি। চলুন জেনে নিই কিছু সুস্বাদু ও স্বাস্থ্যকর আইসক্রিম তৈরির উপায়

১। তাজা ফলের আইসক্রিমঃ

উপকরণঃ
১। কনডেন্সড মিল্ক ১ কাপ,
২। ভ্যানিলা এসেন্স হাফ চা-চামচ,
৩। জল ঝরানো টকদই ১ কাপ,
৪। ফলের কুচি (পাকা আম, কলা, আপেল, স্ট্রবেরি, চেরি, আঙুর ইত্যাদি) ১ কাপ,
৫। আমন্ড-পেস্তা-কাজু কুচি আধ কাপ,
৬। ক্রিম ১৭০ গ্রাম,
৭। গুড়া দুধ আধ কাপ।

প্রণালিঃ
– আধ কাপ ফলের কুচি ও সিকি কাপ বাদাম কুচি বাদে বাকি সব উপকরণ একসঙ্গে ব্লেন্ডারে ব্লেন্ড করে নিন। কয়েক রকম ফুড কালার মিশিয়ে আলাদা আলাদা বক্সে রেখে ফ্রিজে তিন ঘণ্টা রাখুন। ফ্রিজ থেকে আইসক্রিম বের করে বাকি ফলের কুচি ও বাদাম কুচি মিশিয়ে চার ঘণ্টা জমিয়ে পছন্দমতো ফলের কুচি দিয়ে পরিবেশন করুন ।

২। ভ্যানিলা আইসক্রিমঃ

উপকরণঃ
১। ভ্যানিলা এসেন্স ১ চা চামচ,
২। কনডেন্সড মিল্ক ৫ টেবিল,
৩। হুইপড ক্রিম ১ কাপ, (যে কোন বড় সুপার শপ গুলোতে এটি পাওয়া যাবে, অথবা এটি না পাওয়া গেলে হুইপড পাউডার সহজেই কিনতে পাবেন, প্যাকেটে লিখা নির্দেশনা অনুযায়ী হুইপড পাউডার থেকে তৈরি করে নিতে পারেন হুইপড ক্রিম)

প্রণালিঃ
– প্রথমে একটা পাত্র ১৫ মিনিট ধরে ডিপ ফ্রিজে রেখে ঠাণ্ডা করে নিতে হবে। তারপর এতে ১ কাপ হুইপ ক্রিম নিতে হবে। ক্রিমটাকে ইলেক্ট্রিক বিটার দিয়ে বিট করে নিতে হবে ঘন হওয়া পর্যন্ত। ঘন হয়ে গেলে এতে ১ চা চামচ ভ্যানিলা এসেন্স ও ৫ টেবিল চামচ কনডেন্সড দিয়ে দিতে হবে। এবার সব ভালোভাবে মিক্স করতে হবে হালকা হাতে।মিশ্রণটি ২ ঘন্টার জন্য ডিপ ফ্রিজে রেখে দিতে হবে। ২ ঘন্টা পর নামিয়ে একটু নেড়ে দিতে হবে। এতে করে বরফ জমে আইসক্রিমটি শক্ত হয়ে যাবে না। আবার ফ্রিজে রেখে দিতে হবে ৭-৮ ঘন্টার জন্য। হয়ে গেল মজাদার ভ্যানিলা আইসক্রিম।

৩। কুলফি আইসক্রিমঃ

উপকরণঃ
১। গুঁড়া দুধ ২ কাপ,
২। পানি ৩ কাপ,
৩। চিনি ২ টেবিল চামচ,
৪। কনডেন্সড মিল্ক আধা কাপ,
৫। কর্ণফ্লাওয়ার ১ টেবিল চামচ,
৬। ডিমের কুসুম ২টি,
৭। পেস্তা, কাঠবাদাম ও কাজুবাদাম স্বাদমতো,
৮। জাফরান ১ চিমটি ।

প্রণালিঃ
– প্রথমে গুঁড়া দুধ, পানি, কর্ণফ্লাওয়ার, কনডেন্সড মিল্ক, ডিমের কুসুম ও চিনি একসাথে ব্লেন্ডারে ব্লেন্ড করে নিতে হবে। এবার মিশ্রণটি প্যানে ঢেলে জ্বাল দিয়ে ঘন করে নিতে হবে। ঘন হয়ে গেলে চুলা থেকে নামিয়ে নেড়ে নেড়ে ঠান্ডা করে নিন। তারপর জাফরান ও বাদাম কুচি দিয়ে নেড়ে মিক্স করে নিতে হবে। ঠান্ডা মিশ্রণটি কুলফির ছাঁচে ঢেলে ডিপ ফ্রিজে রেখে দিন ৫-৬ ঘন্টা। এবারে পরিবেশন করুন।

৪। চকলেট আইসক্রিমঃ

১। হুইপড ক্রিম ১ কাপ,
২। কনডেন্সড মিল্ক হাফ কাপ,
৩। কোকো পাউডার ২ টেবিল চামচ,
৪। চকলেট সিরাপ পরিমাণ মতো ।

প্রণালিঃ
– প্রথমে হাফ কাপ পরিমাণ কনডেন্সড মিল্কের সাথে ২ টেবিল চামচ কোকো পাউডার মিশিয়ে নিতে হবে। এটিকে ভালো ভাবে মিশিয়ে নিতে হবে। এরপর ১৫ মিনিট আগে থেকে ফ্রিজে রেখে ঠান্ডা করা একটি পাত্রে ১ কাপ হুইপড ক্রিম নিয়ে ঘন হওয়া পর্যন্ত বিটার দিয়ে বিট করে নিতে হবে। এরপর এতে কোকো পাউডার ও কনডেন্সড মিল্কের মিশ্রনটি মেশাতে হবে এবং মিশে যাওয়া পর্যন্ত বিট করে নিতে হবে। মিশ্রণটি ২ ঘন্টার জন্য ডিপ ফ্রিজে রেখে দিতে হবে। ২ ঘন্টা পর নামিয়ে একটু নেড়ে দিতে হবে। এতে করে আইসক্রিমটি মোলায়েম হবে। আবার ফ্রিজে রেখে দিতে হবে ৭-৮ ঘন্টার জন্য। এবার নামিয়ে উপরে চকলেট সিরাপ দিয়ে সাজিয়ে পরিবেশন করুন।

এভাবে অতি সহজে এবং কম সময়ে ঘরে বসে তৈরি করে ফেলুন মজাদার ভিন্ন স্বাদের আইসক্রিম। যার স্বাদ দোকানের আইসক্রিমের চেয়ে কোন অংশে কম নয়, অধিক স্বাস্থ্যকরও বটে। কেমন লাগলো জানাতে ভুলবেন না। ধন্যবাদ

(Visited 1,316 times, 1 visits today)
Share :
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply

Be the First to Comment!

Notify of
avatar