তেলাপোকা থেকে মুক্তির সহজ উপায়

তেলাপোকা থেকে মুক্তির সহজ উপায়
তেলাপোকা থেকে মুক্তির সহজ উপায়

তেলাপোকা দেখতে যেমন বিশ্র্রী তেমন রোগ-বালাইয় ছড়ানোতেও ওস্তাদ। তেলাপোকা মারার জন্য বাজারে বিভিন্ন রকম কীটনাশক পাওয়া যায় যেগুলো মানব শরীরের জন্যে বেশ ক্ষতিকর। স্বাস্থ্যবিষয়ক বেশ কয়েকটি প্রতিবেদনে বলা হয়েছে তেলাপোকা মারার স্প্রেগুলো ব্যবহারের সময় শ্বাস-প্রশ্বাসের সঙ্গে গ্রহণ করলে বিভিন্ন শারীরিক সমস্যা দেখা দিতে পারে। বিশেষ করে শিশু ও পোষা প্রাণীদের জন্য পোকা মারার ওষুধ ও ফাঁদগুলোও বেশ বিপজ্জনক।

তাই তেলাপোকার উপদ্রব হতে বাঁচতে ঘরোয়া উপায় বেছে নেওয়াই সবচাইতে নিরাপদ।

১. নিম:

এর কড়া গন্ধ ও অন্যান্য উপাদান তেলাপোকা তাড়াতে সহায়ক। কয়েকটি তুলার বল নিমের তেলে ডুবিয়ে তেলাপোকা আছে এমন জায়গাগুলোতে রেখে দিতে হবে। এছাড়াও, নিজেই বানিয়ে নিতে পারেন তেলাপোকার মারার স্প্রে। এজন্য গরম পানিতে এক টেবিল-চামচ নিম পাউডার মিশিয়ে নিলেই হয়ে গেল। স্প্রেটি সারারাত তেলাপোকা যেখানে থাকতে পারে সেখানে ছিটিয়ে রাখতে হবে।

২. বোরাক্স ও চিনি:

পোকামাকড়ের বাইরের খোলসে পানিশূন্যতা সৃষ্টি করে এদেরকে ধীরে ধীরে মারে বোরাক্স পাউডার। আর চিনি পোকামাকড়কে লোভ দেখিয়ে বাইরে বের করে আনে। তিন ভাগ বোরাক্স পাউডার আর এক ভাগ চিনি মিশিয়ে মিশ্রণ তৈরি করুন। রাতে যেসব স্থানে তেলাপোকা থাকতে পারে সেখানে ছিটিয়ে দিন। ভালো ফল পেতে সারারাত ছিটিয়ে রাখুন।

৩. কফির তলানি:

কফির সুগন্ধ তেলাপোকার টোপ হিসেবে দারুণ কার্যকর। কফির তলানিতে থাকা কফি ও অন্যান্য অ্যাসিড তেলাপোকার দেহে ধীরে বিষক্রিয়া ঘটায়। কফির তলানি এক টুকরো কাপড়ে বেঁধে তেলাপোকার উপদ্রব যেখানে বেশি, যেমন- আসবাবপত্রের পেছনে, আলমারির উপরে, ময়লার ঝুড়ির চারপাশে ইত্যাদি স্থানে ফেলে রাখতে পারেন।

৪. ফেব্রিক সফ্টেইনার:

তেলাপোকার শ্বাসরোধ করে এই উপাদানটি। ছোট কাপের তিন কাপ পরিমাণ যে কোনো ধরনের ফেব্রিক সফ্টেইনার ও দুই কাপ পানি মিশিয়ে দ্রবণ তৈরি করে বোতলে রাখুন। রাতে ঘুমানোর আগে তেলাপোকার উপদ্রব প্রবণ অঞ্চলে এই মিশ্রণ স্প্রে করুন।

৫. মাউথওয়াশ:

মাউথওয়াশ এর স্বাদ ও গন্ধ তেলাপোকার জন্য অস্বস্তিকর পরিবেশ সৃষ্টি করে। সমপরিমাণ মাউথওয়াশ ও পানি মিশিয়ে তেলাপোকা থাকতে পারে এমন জায়গাগুলোতে সারারাত ছিটিয়ে রাখতে হবে।

৬. বোরিক এসিড ও আটার মিশ্রণঃ

সমপরিমাণে বোরিক এসিড ও আটা একসাথে ভালো করে মিশিয়ে নিন। এরপর এতে পরিমান মতো পানি যোগ করুন এবং হাত দিয়ে মাখাতে থাকুন রুটির ডো তৈরির মতো। বেশী নরমও না এবং বেশী শক্তও নয় এমন ডো তৈরি করে নিন। এরপর ছোট ছোট বলের মতো তৈরি করে নিন। ছোট বলগুলো ঘরের কোণে এবং তেলাপোকা উপদ্রব প্রবণ অঞ্চলে ছড়িয়ে দিন রাতের বেলা। ৩ দিন বা এক সপ্তাহ পরে পরীক্ষা করে দেখবেন এই খাবারটি খেয়ে তেলাপোকা মারা পড়ছে।

(Visited 481 times, 1 visits today)
Share :
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply

Be the First to Comment!

Notify of
avatar