ত্বকের পক্ষে ক্ষতিকারক ৮টি খাবার

ত্বকের পক্ষে ক্ষতিকারক খাবার
ত্বকের পক্ষে ক্ষতিকারক ৮টি খাবার

বাহ্যিক সৌন্দর্য্যে বলতে আমরা যা বুঝি তা হল ত্বক। তাই ত্বকের পরিচর্যায় আমরা দিনের বেশ খানিকটা সময় অতিবাহিত করি। এমন অনেক খাবার আছে যা ত্বকের জন্য উপকারি। কিন্তু এমন খাবারও আছে যা আপনার ত্বকের ক্ষতি করতে পারে। অথচ এই সমস্ত খাবারের কারণে যে চেহারার অনেক যত্ন নেয়ার পরও সৌন্দর্য নষ্ট হচ্ছে তা আমরা বুঝতেও পারছি না! মুখরোচক বলে আমরা যেসব খাবার খায় তা থেকে হজমের সমস্যা, অতিরিক্ত টক্সিনের সমস্যা, প্রদাহ ইত্যাদি হতে পারে। কোলাজেন নষ্ট হয়ে ত্বকে দেখা দিতে পারে ফুসকুড়ি ও বলিরেখা। চলুন তবে দেখে নেয়া যাক ত্বকের জন্য ক্ষতিকারক হতে পারে এমন সব খাবারের তালিকাঃ-

১. মাত্রাতিরিক্ত লবণ

লবণ ছাড়া রান্নায় স্বাদ হয় না।। কিন্তু এই লবণই আমাদের সৌন্দর্যের মারাত্মক ক্ষতি করে। লবণ বেশি খেলে দেহে ফ্লুইডের পরিমাণ বেড়ে যায়। এতে অল্প বয়সে ত্বক ঝুলে পড়ে মুখ ফোলা লাগে এবং চেহারায় ক্লান্তির ছাপ চলে আসে।

২. তেলে ভাজা খাবার

তেলে ভাজা খাবারে প্রক্রিয়াজাত কার্বোহাইড্রেট দীর্ঘ মেয়াদে শরীরের জন্য খারাপ। অতিরিক্ত ভাজাপোড়া খাবার খেলে আপনার ত্বকে ব্রণ বা ফুসকুড়ির মতো সমস্যা তৈরি হতে পারে। ফলে ত্বক নিস্প্রান হয়ে যায় এবং লাবন্নতা হারায়।

৩. লাল মাংস

গরু, খাসীর মাংস ভালোবাসেন না এমন মানুষ নেই বললেই চলে। তবে দুঃখজনক হলো মাত্রাতিরিক্ত লাল মাংস খেলে ত্বকের ওপর বিরূপ প্রভাব পরে। এতে আছে স্যাচুরেটেড ফ্যাট যা অ্যান্টিঅক্সিডেন্টের উপর ক্ষতিকর প্রভাব ফেলে এবং ত্বকের সৌন্দর্য নষ্ট করে দেয়।

৪. কোমল পানীয়

কোমল পানীয় এবং এনার্জি ড্রিংকস ত্বকের মারাত্মক ক্ষতি করে। এই সকল কোমল পানীয়তে বেশি মাত্রায় চিনি এবং কার্বন ডাই অক্সাইড থাকে যা আমাদের দেহে পৌঁছে রক্তের সুগারের মাত্রা বাড়িয়ে তোলে। ফলে আমাদের ব্রণের সমস্যা সহ নানা সমস্যা দেখা দেয়।

৫. চিনি জাতীয় খাবার

চিনি দিয়ে তৈরি চকলেট, ক্যান্ডি খেতে ছোটবেলাই কত না মজা লাগত! এখনো যদি অভ্যস্ত থাকেন তাহলে চিনি মেদ হিসেবে জমা হবে আর বাড়াবে কলেস্ট্ররেল। অতিরিক্ত চিনির কারণে ত্বকের কোলাজেন নষ্ট হয়ে ত্বকের স্থিতিস্থাপকতা হারিয়ে যেতে পারে।

6. দুধ

গবেষণায় দেখা গেছে যে দুধ খেলে ব্রণের মাত্রা বাড়ে। কারণ বেশিরভাগ দুধই গর্ভবতী গরুর থেকে নেয়া হয় এবং তাতে প্রাকৃতিক গ্রোথ হরমোনের উপস্থিতি পাওয়া যায় যা ব্রণ সৃষ্টি করে। দই ছাড়া, দুগ্ধজাত যে কোনো খাবারেই ব্রণের উপদ্রব বাড়ার সম্ভাবনা থাকে। তাই দই খান কারণ দুধের প্রায় সব গুনাগুন দইয়ে বিদ্যমান।

7. ফাস্টফুড

ফাস্টফুড আমাদের দেহে ফ্যাট জমা করে, ওজন বাড়ায় আর চেহারার অনেক ক্ষতি করে। এই জাতীয় খাবার আমাদের দেহের পানির পরিমাণ কমিয়ে দেয়। এতে ত্বকে পানির মাত্রা কমে গিয়ে ত্বক শুষ্ক এবং রুক্ষ হয়ে পড়ে।

৮. অতিরিক্ত চা কফি পান

চা-কফি একটি রিফ্রেশিং ড্রিংক। পরিমিত চা-কফি আমাদের স্বাস্থ্যের জন্য বেশ ভালো। কিন্তু অতিরিক্ত আবার আমাদের ত্বকের জন্য মারাত্মক ক্ষতিকর। এই ক্যাফেইনের জন্য ত্বক খুব দ্রুত বুড়িয়ে যায় এবং ত্বকে বলিরেখা পরে। তাই চা-কফি পানের মাত্রা কমিয়ে দিন। দিনে ২ কাপের বেশি চা পান করা থেকে বিরত থাকুন।

(Visited 80 times, 1 visits today)
Share :
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply

Be the First to Comment!

Notify of
avatar